ফণ্ট ডাউনলোড
নীড় সঙ্গীতবিদ্যায়তন শিক্ষার্থীদের জন্য সাধারণ নীতি

শিক্ষার্থীদের জন্য সাধারণ নীতি


আগমন ও অবস্থান

  • পরিচয়পত্র পরে ও নির্ধারিত পোশাকে বিদ্যায়তনে আসা
  • ভবনে প্রকাশ্যভাবে পরিচয়পত্র ধারণ করা
  • ভবন ত্যাগের পরই কেবল পরিচয়পত্র খোলা
  • প্রবেশ-পথের বারকোড রিডারে উপস্থিতি লিপিবদ্ধ করানো
  • ক্লাসের সময় বারান্দায় বা ভবনে ঘোরাফেরা না করা
  • অনুমতি ছাড়া ক্লাস শেষ হবার আগে ভবন ত্যাগ না করা
  • ক্লাস শেষ হবার মিনিট পনেরোর মধ্যে ভবন ত্যাগ করা
  • অনুমতি ছাড়া ভবনের পিছনের সিঁড়ি ব্যবহার না করা
  • বিনা অনুমতিতে ভবনের পিছন দিকে না যাওয়া

বি.দ্র. ছায়ানট সঙ্গীতবিদ্যায়তন কর্তৃপক্ষ যে কোনো শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করার অধিকার রাখে

 

শ্রেণিকক্ষ

  • নির্ধারিত তলায় যাবার জন্য লিফ্‌ট ব্যবহার না করা
  • কক্ষে পাদুকা খুলে প্রবেশ, প্রয়োজনে সঙ্গে করে ব্যাগে রাখা
  • ঘণ্টা পড়ার আগেই আসন নেয়া
  • শিক্ষক এলে মোবাইল ফোন বন্ধ বা নিরব রাখা
  • নাম ডাকার সময় সচেতন থাকা ও নিজের হাজিরা দেয়া
  • হারমোনিয়াম-তবলা, শব্দযন্ত্র ব্যবহার না করা
  • ঘণ্টা পড়ার আগে বিনা অনুমতিতে না বেরোনো
  • নিজের বই-খাতা-ব্যাগ-ফোন নজরে রাখা
  • কর্মীসহ সকলের সঙ্গে সৌহার্দপূর্ণ ব্যবহার

বি.দ্র. হারানো জিনিসের দায় বিদ্যায়তনের নয়। তবে ফেরত পাওয়ার লক্ষ্যে লিপিবদ্ধ করানো প্রয়োজন

 

নির্ধারিত পোশাক

  • ছেলেদের সাধারণ ছাঁটের সূতি পাঞ্জাবী
  • বড় মেয়েদের সূতি শাড়ি
  • শিশু বিভাগের মেয়েদের সালোয়ার-কামিজ বা ফ্রক
  • শুদ্ধসঙ্গীত বিভাগের শিশু বয়সী মেয়েরা কার্যালয়ের লিখিত অনুমতি নিয়ে সালোয়ার-কামিজ বা ফ্রক পরতে পারবে
  • নৃত্যকলা বিভাগের মেয়েদের কালো বা লাল সালোয়ার ও সাদা কামিজ
  • নিজস্ব শিক্ষালয় থেকে সরাসরি সঙ্গীতবিদ্যায়তনে আসা শিক্ষার্থী তার শিক্ষালয়ের নির্ধারিত পোশাক (ইউনিফর্ম) পরতে পারবে
  • যে কোনো পোশাকের রঙ নির্বাচন ও ছাঁটে বাঙালি রুচি ও সাদামাঠা ভাবের প্রতিফলন থাকা বাঞ্ছনীয়

 

অনিয়মিত উপস্থিতি

  • এক বছর অনিয়মিত থাকলে আগের বছরের বকেয়া বেতন পরিশোধ করে অধ্যয়নরত শ্রেণিতেই পুনর্ভর্তি হওয়া যায়
  • শিক্ষাবর্ষের শুরুতেই কার্যালয়ের অনুমোদন নিয়ে এক বছরের শিক্ষা-বিরতি নিয়ে পুনর্ভর্তি হওয়া যায়
  • সকল ক্ষেত্রেই কার্যালয় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পুনর্ভর্তির নিবন্ধন জরুরি
  • ২ বছর বা তার অধিক সময় শিক্ষাগ্রহণে ছেদ পড়লে আগ্রহীদের আবার ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে কৃতকার্য হতে হবে
  • বার্ষিক দেয় পরিশোধিত থাকলে একই শ্রেণিতে অনধিক ৩ বছর শিক্ষা নেয়া যাবে

 

বেতন

  • ভর্তি ও বেতন সংক্রান্ত সব অর্থ নির্দিষ্ট রশিদে ব্যাংকে জমা দিতে হয়
  • ব্যাংকে অর্থ পরিশোধের পর রশিদের বাকি ২ অংশ অভ্যর্থনা কেন্দ্রে দেখাতে হবে, বিদ্যায়তন অংশ জমা দিয়ে নথিভুক্ত করাতে হবে
  • বেতন মাসে মাসে পরিশোধ করা বাঞ্ছনীয়
  • সঙ্গীত-সূচনা নৃত্য-সূচনা কার্যক্রমের মাসিক বেতন ৳৩৫০ (তিন শত পঞ্চাশ টাকা)
  • নৃত্য-প্রবেশ শুদ্ধসঙ্গীত কার্যক্রমের মাসিক বেতন ৳৪০০ (চার শত টাকা)
  • সঙ্গীত-প্রবেশ কার্যক্রমের মাসিক বেতন ৳৪৫০ (চার শত পঞ্চাশ টাকা)
  • তিন মাসের বেতন বকেয়া পড়লে প্রথম জরিমানা ১০০ টাকা, পরের মাসপ্রতি ৫০ টাকা
  • ভর্তি ও পুনর্ভর্তির সময় এক সঙ্গে ৬ মাসের (বৈশাখ থেকে আশ্বিন) বেতন নেয়া হয়েছে
  • সঙ্গীত-পরিচয়, বিশেষ শ্রেণি, নিবিড় শিক্ষণ সুরের জাদু-রঙের জাদু কার্যক্রমে ভর্তির সময় এককালীন টাকা নেয়া হয়, কোনো মাসিক বেতন নেই
  • ফাল্গুন মাসের বার্ষিক পরীক্ষার আগে বার্ষিক দেয় পরিশোধ করতে হবে
  • আংশিক বা পুরো বছরের বেতন অগ্রিম জমা দেয়া যাবে

 

বার্ষিক পরীক্ষা

  • বিদ্যায়তন নির্ধারিত সূচিতে ফাল্গুন মাস থেকে
  • চৈত্র মাস পর্যন্ত বেতন পরিশোধিত থাকতে হবে
  • বছরে অন্তত ৫০% ক্লাসে উপস্থিত থাকতে হবে
  • নিজ শ্রেণি অথবা কার্যালয় থেকে পরীক্ষার ছাড়পত্র সংগ্রহ করতে হবে
  • ছাড়পত্র, পরিচয়পত্র ও নির্ধারিত পোশাক ছাড়া পরীক্ষা দেয়া যায় না
  • পরীক্ষার পর ছাড়পত্রে শিক্ষকের মন্তব্য ও স্বাক্ষর সংগ্রহ করতে হবে
  • ফল প্রকাশ হলে ছাড়পত্র দেখিয়ে মূল্যায়নপত্র বুঝে নিতে হবে
  • কোনো বিষয়ে উত্তীর্ণ হবার ন্যূনতম নম্বর ৪০%
  • পরীক্ষার মান: সাধারণ ৪০–৪৯%, দ্বিতীয় ৫০–৫৯%,প্রথম ৬০% >

বিজ্ঞপ্তি সবগুলো..

আয়োজন সবগুলো..

২৬ কার্তিক, ১০ নভেম্বর
নৃত্য-উৎসব ১৪২৪